My All Garbage

Shuchi Potro
সাধারণ জ্ঞান বাংলা ব্যাকরণ বাংলা রচনা সমগ্র ভাবসম্প্রসারণ তালিকা অনুচ্ছেদ চিঠি-পত্র ও দরখাস্ত প্রতিবেদন প্রণয়ন অভিজ্ঞতা বর্ণনা সারাংশ সারমর্ম খুদে গল্প ভাষণ লিখন দিনলিপি সংলাপ অ্যাসাইনমেন্ট-২০২১ English Grammar Composition / Essay Paragraph Letter, Application & Email Dialogue List Completing Story Report Writing Graphs & Charts পুঞ্জ সংগ্রহ বই পোকা হ য ব র ল তথ্যকোষ পাঠ্যপুস্তক CV & Job Application My Study Note আমার কলম সাফল্যের পথে
About Contact Service Privacy Terms Disclaimer Earn Money


মুক্তিযোদ্ধা দিবস - বুদ্ধিজীবী হত্যা দিবস - বিজয় দিবস
বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শিক্ষা সহায়ক ওয়েব সাইট

নারী শিক্ষার গুরুত্ব নিয়ে বাবা ও মেয়ের মধ্যে সংলাপ

নারী শিক্ষার গুরুত্ব নিয়ে বাবা ও মেয়ের মধ্যে একটি সংলাপ রচনা করো।


শাহানা : বাবা আজকের পেপার দেখেছ?

মি. সামাদ :  এখনো দেখিনি মা, কোনো বিশেষ খবর আছে কি?

শাহানা : এইচএসসি পরীক্ষার্থী এক মেয়ে ও তার পরিবারের গল্প আছে বাবা।

মি. সামাদ : বিশেষ কোনো ব্যাপার ছাড়া তুই তো আমায় বলতি না।

শাহানা : যে গ্রামে পরিবারটি থাকে সেখানে খুব কম বয়সেই মেয়েদের বিয়ে দেয়া হয়। কিন্তু ওই মেয়েটির প্রবল ইচ্ছা ও তার পরিবারের আগ্রহের কারণেই সে এইচএসসি পর্যন্ত আসতে পেরেছে। তার বাবার ইচ্ছা মেয়েকে আরো পড়াশোনা করানো।

মি. সামাদ : নারী শিক্ষার গুরুত্ব তাহলে মানুষ বুঝতে শিখেছে। সমাজের পরিবর্তন হচ্ছে।

শাহানা : হ্যা বাবা, প্রত্যন্ত অঞ্চলে ধারণাগুলো যেতে সময় লাগছে। কিন্তু সুফল আসতে শুরু করেছে; তাই না?

মি. সামাদ : ঠিকই বলেছিস, যে দেশের মানুষ নারীর ক্ষমতায়নকে এত শ্রদ্ধা করে; সে দেশে নারী শিক্ষা প্রসার তো সময়ের ব্যাপার মাত্র।

শাহানা : বাবা, তুমি কী সুন্দর করে বললে; আসলেই তো আমাদের দেশে নারীরা সব স্থানেই নেতৃত্বের ভূমিকা পালন করছে।

মি. সামাদ : শুধু দেশে নয় রে মা, পড়াশোনা করে মেয়েরা এখন বাইরেও যাচ্ছে। বিশ্বের বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজে বাংলাদেশের মেয়েরা নেতৃত্ব দিচ্ছে।

শাহানা : হ্যা বাবা, মেয়েরা তো এখন এভারেস্টেও চড়ছে।

মি. সামাদ : এগুলো সম্ভব হয়েছে শুধু পড়াশোনায় মেয়েদের অগ্রগতির কারণে।

শাহানা : অবৈতনিক শিক্ষা আর উপবৃত্তি এক্ষেত্রে দারুণ ভূমিকা রেখেছে।

মি. সামাদ : আর্থিকভাবে অসচ্ছল মানুষও এখন মেয়েদের পড়ানোর চেষ্টা করছে।

শাহানা : সব মেয়েরা পড়াশোনা করছে, ভাবতেই ভালো লাগছে।

মি. সামাদ : তোকেও অনেক পড়াশোনা করতে হবে।

শাহানা : বাবা, তাহলে আমাকে তুমি বাইরে পড়তে পাঠাবে নিশ্চয়ই।

মি. সামাদ : তুই যদি সেই সুযোগ করতে পারিস, তবে অবশ্যই বাইরে পড়তে পাঠাব।

No comments