বইয়ে খোঁজার সময় নাই
সব কিছু এখানেই পাই

বাগধারা ও প্রবাদ-প্রবচন - থ, দ

 থ 
থ’ হয়ে যাওয়া, থতমত খাওয়া (কিংকর্তব্যবিমূঢ় হওয়া) – কি কথার ঢং, এতটুকু ছেলে না তার কথা শুনে থ’ হয়ে গেলাম।

থৈ পাওয়া (সীমা পাওয়া) – এত করলাম অথচ তোমাকে খুশি করা গেল না, তোমার মনের থৈ পাওয়া কি আমার সাধ্যি?

থাবাথুবি দিয়ে রাখা (ভুলিয়ে রাখা) – ক্রন্দনরত বালকটাকে জননী থাবাথুবি দিয়ে রাখলেন।

থোঁতা মুখ ভোঁতা হওয়া (বড় মুখ ছোট হওয়া) – আঃ, এত দেমাক কিসের জন্য, ছেলে যা কেলেঙ্কারি করেছে, তাতে তোমার থোঁতা মুখ ভোঁতা হয়েছে, টের পাও না?

থোড় বড়ি খাড়া আর খাড়া বাড়ি থোড় (একঘেয়ে ব্যাপার) – নতুন খবর আর কি থাকবে বল -এই তো থোড় বাড়ি খাড়া আর খাড়া বাড়ি থোড়।

থোড়াই কেয়ার করা (বিন্দুমাত্র সমীহ বা গ্রাহ্য না করা) – ও আমার কি করবে? ওকে আমি থোড়াই কেয়ার করি।

 দ 
দন্তস্ফুট করা (কঠিন বিষয়ে প্রবেশ) – অঙ্কটি এমনই দুরূহ যে সহজে দন্তস্ফুট করা গেল না।

দুধ-কলা দিয়ে সাপ পোষা (যত্ন করে শত্রু পোষা) – টের পাইনি, দুধ-কলা দিয়ে সাপ পুষেছিলাম, সুযোগ পেয়ে পালিয়ে গেল।

দশের লাঠি একের বোঝা (সকলে মিলে কাজ করলে সহজ, কিন্তু একজনের পক্ষে বোঝা স্বরূপ) – তোমরা দেশের মানুষ, কাজ করে যাও, কোনো সমস্যাই কঠিন নয়, জানো তো, দশের লাঠি একের বোঝা।

দুধে-ভাতে থাকা (ভালোভাবে থাকা) – দোয়া করুন হুজুর, আমার ছেলেমেয়ে যেন দুধে-ভাতে থাকে।

দহরম মহরম (মাখামাখি বন্ধুত্ব) – দুজনের মধ্যে খুব দহরম মহরম দেখছি, বন্ধুত্ব টিকলে হয়।

দা-কুমড়া সম্বন্ধ (শত্রুভাব) – বাপ-বেটার দা-কুমড়া সম্বন্ধ! বল কি হে?

দুমুখো সাপ (যার মুখে দুই রকমের কথা বের হয়) – মান্নান একজন দুমুখো সাপ, এর কথা ওকে বলে, ওর কথা একে বলে।

দু’কান কাটা (বেহায়া) – জেল খেটে খেটে এই পাকা চোরটি দু কান কাটা হয়ে পড়েছে।

দাঁতে কুটা কাটা (বিনীত হওয়া) – শিষ্য ওস্তাদের কাছে দাঁত কুটা কেটে উপস্থিত হলো।

দক্ষযজ্ঞ ব্যাপার (বিরাট সমারোহ) – চৌধুরী বাড়িতে বিয়ের হৈ চৈ পড়েছে, যেন দক্ষযজ্ঞ ব্যাপার।

দাঁও মারা (মোটা লাভ করা) – সুযোগ বুঝে কাঁচামাল ব্যাবসায়ীরা এক দাঁও মারার চেষ্টা করছে।

দুধের সাধ ঘোলে মেটানো (উৎকৃষ্ট বস্তুর অভাব নিকৃষ্ট বস্তুর দ্বারা মেটানো) – মাতৃস্নেহ কি অন্য আত্মীয়ের যত্নে মেটে, দুধের সাধ ঘোলে মেটাতে পারে না।

দয়ে মজানো (বিপদে ফেলা, সর্বস্বন্ত করা) – ভুলিয়ে ভালিয়ে ব্যবসায় নামিয়ে লোকটা আমাকে দয়ে মজিয়েছে।

দক্ষিণ হস্তের ব্যাপার (খাওয়া/ভোজন) – দক্ষিণ হস্তের ব্যাপারটা এখনও সারা হলো না?

দড়ি-কলসি (আত্মহত্যা করার উপকরণ) – দড়ি-কলসিও জোটে না তোমার?

দফা নিকাশ (সমূহ সর্বনাশ) – শত্রুরা আমাদের দফা নিকেশ করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে।

দশকথা (নানা কথা/নানা রকম কটুকথা) – বিয়ে শাদীর মতো বড় কাজে ও রকম দশকথা হয়েই থাকে।

দহলা-নহলা করা (ইতস্ততা করা) – রওনা হবার আগের মুহূর্ত পর্যন্ত সে খুব দহলা-নহলা করছে।

দাগাবাজ (প্রতারক) – পড়েছি এক দাগাবাজের পাল্লায়।

দানাপানি (অন্নজল) – সারাদিন খাটছে ছেলেটা, এখনও পেটে দানাপানি পড়েনি।

দিনকে রাত করা (সত্যকে মিথ্যা বা ভালোকে মন্দ প্রতিপন্ন করা) – তুমি তো দেখছি সাংঘাতিক লোক-দিনকে রাত করতে পারো।

দিন গোনা (অধীরভাবে প্রতীক্ষা করা) – আমি এখন যাবার দিন গুনছি।

দু-এক কথা (অল্প কথা) – দু-এক কথায় ব্যাপারটা বুঝিয়ে দাও।

দু-চার কথা (আলাপ আলোচনা) – তার সঙ্গে দু চার কথা হলো।

দু-দণ্ড (কিছু সময়, একটুখানি সময়) – দু-দণ্ড যে আপনার কাছে বসে কথা শুনব সে সময়টুকুও আমরা পাইনে।

দু নৌকায় পা দেয়া (দুটি সম্পূর্ণ বিপরীত ধরনের কাজে একই সঙ্গে হাত দেয়া) – চালাকি করে দু নৌকায় পা দিয়েছ বটে কিন্তু শেষরক্ষা হবে কি?

বর্ণ অনুসারে পরবর্তী গুলো পাওয়ার জন্য নিচে ক্লিক করুন -
 -  -  -  -  -  -  -  -  -  -  -  -  -  - - - - - -  - থ - দ -  -  -  -  -  -  -  -  -  -  -  -  -  - 

No comments