বইয়ে খোঁজার সময় নাই
সব কিছু এখানেই পাই

রচনা : স্বাস্থ্যই সম্পদ

ভূমিকা : স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। স্বাস্থ্য মানুষের পরম সম্পদ। যাহার স্বাস্থ্য নাই তাহার মত হতভাগ্য আর পৃথিবীতে কেহ নাই। স্বাস্থ্যহীন ব্যক্তির পক্ষে জীবন একটি বিড়ম্বনা মাত্র। অপরপক্ষে স্বাস্থ্যবান ব্যক্তি দরিদ্র হইলেও সুখী। 

স্বাস্থ্যের প্রয়োজনীয়তা : মানুষ সুখ-শান্তি ও আনন্দের প্রত্যাশা করে। কিন্তু স্বাস্থ্যহীন ব্যক্তি বিরাট অট্রালিকা বাস করিয়াও কোমলশয্যায় শয়ন করিয়াও শান্তি লাভ করিতে পারে না। স্বাস্থ্যবান দরিদ্র ব্যক্তি স্বাস্থ্যহীন ধনবান ব্যক্তি অপেক্ষা অধিকতর সুখী। স্বাস্থ্যহীন ব্যক্তি আর্থিক, মানসিক এবং আধ্যাত্মিক ক্ষেত্রেও উন্নতি লাভ করিতে পারে না। জীবনের সকল ক্ষেত্রেই স্বাস্থ্যের প্রয়োজন। স্বাস্থ্য ভাল না থাকিলে মানুষের চিন্তাশক্তি ও স্মৃতিশক্তি লোপ পায়। সাধারণত স্বাস্থ্যহীন ব্যক্তির মেজাজ সব সময় খিট্খিটে থাকে। সাংসারিক জীবনের সর্বপ্রকার উন্নতি স্বাস্থ্যবান মানবের পক্ষে সম্ভবপর। সর্বপ্রকার বিলাস ও ঐশ্বর্য থাকিলেও স্বাস্থ্যহীন মানুষের জন্য তাহা তৃপ্তিকর নহে। স্বাস্থ্য ভাল থাকিলে সকল তৃপ্তিই লাভ করা যায়। 

স্বাস্থ্যবান দরিদ্র মজুর স্বাস্থ্যহীন ধনীর চাইতেও সুখী। এইকথা সহজে বুঝিতে পারা যায়। জীবনে সকল প্রকার আনন্দ, তৃপ্তি, কর্মতৎপরতার মূলে রহিয়াছে স্বাস্থ্য। সুস্থাবস্থায় বুঝিতে না পারিলেও অসুস্থ হইলে দিনের আলোর ন্যায় এইকথা সহজেই বুঝিতে পারা যায়। মানুষ যেমন তাহার সমস্ত শক্তি দ্বারা ধনসম্পদ রক্ষা করিবার চেষ্টা করে তেমনি স্বাস্থ্যরক্ষার জন্যও মানুষের সচেষ্ট থাকা উচিত। এই অমূল্য উপদেশ ‘স্বাস্থ্যই সম্পদ’ কথাটির মধ্যে নিহিত আছে। 

স্বাস্থ্যরক্ষার উপায় : প্রথমত শরীর সর্বদা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা প্রয়োজন। শরীর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হইলে সর্বদা উত্তমরূপে স্নান এবং স্নানের সময় উত্তমরূপে শরীর মর্দন করা প্রয়োজন। 

শরীরে চামড়ার উপর ময়লা জমিয়া অনেক সময় লোমকুপ বন্ধ হইয়া রোগ জন্মিবার উপক্রম হয়। প্রত্যহ দাঁত, জিহ্বা, হাত, পা, কান ও চুল পরিষ্কার করা প্রয়োজন। দন্দরোগ হইতে অনেক রোগের উৎপত্তি হয়। পরিধেয় বস্ত্র, বিছানা ও জামা-কাপড় সর্বদা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা একান্ত প্রয়োজন। বাসগৃহে যাহাতে যথেষ্ট পরিমাণ আলো-বাতাস লাগে সেই দিকে লক্ষ্য রাখিতে হইবে। স্বাস্থ্যরক্ষার আর এক উপায় হচ্ছে পুষ্টিকর খাদ্য ও বিশুদ্ধ আহার। এই সকল খাদ্যবস্তু না খাইলে পেটে নানা প্রকার রোগের সৃষ্টি হয়। আজকাল বাজারে নানারকম ভেজাল দ্রব্য পাওয়া যাইতেছে। এইসব ভেজাল খাদ্যদ্রব্য স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। স্বাস্থ্যরক্ষার জন্য ভিটামিনযুক্ত খাদ্যের যথেষ্ট প্রয়োজন। ব্যায়াম স্বাস্থ্যরক্ষার অন্যতম উপায়। প্রত্যহ উপযুক্ত ও নিয়মিতভাবে ব্যায়াম করা একান্ত দরকার। ডান, বৈঠক, কুস্তি, খেলাধূলা, ইত্যাদি বিবিধ প্রকারের ব্যায়াম প্রচলিত আছে। প্রত্যহ আমরা যে সমস্ত খাওয়া-দাওয়া করি তাহা উত্তমরূপে হজম করিবার জন্য ব্যায়াম করা প্রয়োজন। অলসভাবে থাকিলে রক্তচাপ, বহুমূত্র, অজীর্ণ প্রভৃতি রোগ হয়। সকালে ও বিকালে নদীর তীরে খোলা মাঠে চলাফেরা করা একান্ত প্রয়োজন। ক্ষুধা নিবারণের জন্য যেমন আহারের প্রয়োজন তেমনি নিয়মিত বিশ্রাম, নিদ্রা ও ব্যায়ামের জন্য প্রত্যহ নিয়ম-পদ্ধতি রাখা প্রয়োজন। 

উপসংহার : স্বাস্থ্য মানব-জীবনের অমূল্য সম্পদ। স্বাস্থ্য ভাল না থাকিলে মানুষকে ইহজগতে নরকের মত শাস্তি ভোগ করতে হয়। এই জন্য বাল্যকাল থেকে প্রত্যেক মানুষকে সুস্থাস্থ্য করে গড়িয়া তোলা উচিত।

6 comments:


Show Comments