বইয়ে খোঁজার সময় নাই
সব কিছু এখানেই পাই

সাধারণ জ্ঞান : সংবিধান সংশোধনীসমূহ ও বিষয়বস্তু (ত্রয়োদশ থেকে ষোড়শ সংশোধনী)

ত্রয়োদশ সংশোধনী

উত্থাপনকারী – জমির উদ্দিন সরকার
উত্থাপন – ২১ মার্চ ’৯৬
গৃহীত – ২৭ মার্চ ’৯৬
রাষ্ট্রপতির অনুমোদন – ২৮ মার্চ, ’৯৬

বিষয়বস্তু :
এ সংশোধনীর মাধ্যমে ভবিষ্যতে সকল জাতীয় নির্বাচন পরিচালনার জন্য ‘নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা’ প্রবর্তন করা হয়।

চতুর্দশ সংশোধনী

উত্থাপনকারী – মওদুদ আহম্মদ
উত্থাপন – ১৭ মার্চ ’০৪ (পুনরায় ২৮ এপ্রিল ’০৪)
গৃহীত – ১৬ মে ’০৪
রাষ্ট্রপতির অনুমোদন – ১৭ মে ’০৪

বিষয়বস্তু :
৪৫টি নারী আসন : সংবিধানের ৬৫নং অনুচ্ছেদ মোতাবেক জাতীয় সংসদে মহিলাদের জন্য ৪৫টি আসন ১০ বছরের জন্য সংরক্ষিত রাখার বিধান।

প্রতিকৃতি সংরক্ষণ : সংবিধানের ৪(ক) নতুন অনুচ্ছেদে প্রতিকৃতি সংরক্ষণের কথা বলা হয়েছে –
  • রাষ্ট্রপতির প্রতিকৃতি : রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকারের কার্যালয় এবং বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশের দূতাবাস ও মিশনসমূহে সংরক্ষণ ও প্রদর্শন করতে হবে।
  • প্রধানমন্ত্রীর প্রতিকৃতি : রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকিারের কার্যালয় এবঙ সকল সরকারি ও আধা-সরকারি অফিস, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, সংবিধিবদ্ধ সরকারি কর্তৃপক্ষের প্রধান ও শাখা কার্যালয়। সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশের দূতাবাস ও মিশনসমূহে সংরক্ষণ ও প্রদর্শন করতে হবে।
অর্থ বিল : সংবিধানের ৮২নং অনুচ্ছেদে অর্থবিল সম্পর্কিত বাংলা সংস্করণে সরকারি অর্থ ব্যয়ের সাথে জড়িত রয়েছে এমন কোন অর্থ বিল বা বিল শব্দগুলো ও কমার পরিবর্তে কোনো অর্থ বিল, অথবা সরকারি অর্থ ব্যয়ের প্রশ্ন জড়িত রয়েছে এমন কোনো বিল শব্দগুলো ও কমা প্রতিস্থাপন করা হয়েছে।

সংসদ সদস্যদের শপথ : সংবিধানের ১৪৮ অনুচ্ছেদ মোতাবেক সংসদ নির্বাচনের ফল সরকারি গেজেটে প্রকাশিত হওয়ার পরবর্তী তিন দিনের মধ্যে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের স্পিকার শপথ বাক্য পাঠ করাতে ব্যর্থ হলে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এই শপথ পাঠ পরিচালনা করবেন।

বিচারপতির বয়স সীমা : সংবিধানের ৯৬নং অনুচ্ছেদ সংশোধন করে সুপ্রীম কোর্টের বিচারপতিদের অবসর বয়স সীমা ৬৫ বছর থেকে বাড়িয়ে ৬৭ বছর করা হয়েছে।

পিএসসি চেয়ারম্যান ও সদস্যদের বয়স সীমা : সংবিধানের ১৩৯নং অনুচ্ছেদ সংশোধন করে সরকারি কর্ম কমিশনের চেয়াম্যান ও সদস্যদের অবসর বয়স সীমা ৬২ বছর থেকে বাড়িয়ে ৬৫ বছর করা হয়েছে।

সিএজির বয়স সীমা : সংবিধানের ১২৯নং অনুচ্ছেদ সংশোধন করে বলা হয়েছে যে, মহা হিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক তার দায়িত্ব গ্রহণের তারিখ হতে পাঁচ বৎসর বা তার বয়স পঁয়ষট্টি বৎসর পূর্ণ হওয়া এর মধ্যে যা আগে পূর্ণ হবে সেই কাল পর্যন্ত স্বীয় পদে বহাল থাকবেন।

পঞ্চদশ সংশোধনী


গৃহীত হয় – ৩০ জুন ২০১১
রাষ্ট্রপতির অনুমোদন – ৩ জুলাই ২০১১

বিষয়বস্তু :
  • তত্ত্বাবধায়ক সংস্কার ব্যবস্থা বাতিল এবং অন্তবর্তীকালীন সরকার ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা।
  • ১৯৭২ সালের জাতীয় চার মূলনীতি পুনঃস্থাপন (ধর্মনিরপেক্ষতা, জাতীয়তাবাদ, গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্র)
  • ‘বিসমিল্লাহির রাহ্‌মানির রাহিম’ এর সাথে পরম করুণাময় সৃষ্টিকর্তার নামের সংযোজন।
  • ইসলাম রাষ্ট্রধর্ম বহাল এবং এর সাথে অন্যান্য ধর্মের সমমর্যাদা নিশ্চিত করার বিধান।
  • জাতীয়তা-বাঙালী, নাগরিকত্ব-বাংলাদেশী প্রতিষ্ঠা।
  • ৭ মার্চ ঐতিহাসিক ভাষণ, ২৬-মার্চের ঘোষণা ও স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র অন্তর্ভূক্ত।
  • জাতির পিতার স্বীকৃতি।
  • অবৈধ ক্ষমতা দখল করলে সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান।
  • জাতীয় সংসদে মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত আসন ৫০টিতে উন্নীতকরণ।
  • সংবিধানের ১২নং অনুচ্ছেদ (ধর্মনিরপেক্ষতা পুনরায় প্রতিস্থাপন)।

ষোড়শ সংশোধনী


উত্থাপনকারী – আইনমন্ত্রী আনিসুল হক
উত্থাপন – ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪
সংসদে পাশ – ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪

বিভক্তি ভোটে পাশ হয়। প্রথম বিভক্তি ভোট : পক্ষে ৩২৮টি আর বিপক্ষে ০টি ভোট পড়ে। দ্বিতীয় ভিবক্তি ভোট : পক্ষে ৩২৭ ভোট পড়ে আর ১টি দেয়া হয়নি।

রাষ্ট্রপতির অনুমোদন – ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৪

বিষয়বস্তু :
জাতীয় সংসদ কর্তৃক বিচারপতিদের অপসারণ।

No comments