মার্চের দিনগুলি

অনুচ্ছেদ : স্কুল ম্যাগাজিন (দেয়ালিকা)

স্কুল ম্যাগাজিন (দেয়ালিকা)


স্কুল ম্যাগাজিন সাহিত্য কর্মকান্ড এবং অন্যান্য তথ্য ধারণ করে। এটি বছরে একবার প্রকাশিত হয়। স্কুলে আমাদের একটি স্কুল ম্যাগাজিন আছে। এটি সুচারুভাবে প্রকাশের জন্য একটি সাধারণ সভায় নয় সদস্যের একটি ম্যাগাজিন কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটির সদস্যমন্ডলীগণ হলো প্রধান পৃষ্ঠাপোষক, উপদেষ্টা, সম্পাদক, সহকারী সম্পাদক, বাণিজ্যিক সম্পাদক মুদ্রণশোধক, সহকারী মুদ্রণশোধক প্রভৃতি। প্রধান শিক্ষক প্রধান পৃষ্ঠপোষকের পদে থাকেন এবং একজন সিনিয়র শিক্ষক উপদেষ্টা হন। সম্পাদক, বাণিজ্যিক সম্পাদক এবং সাহায্যকারী মুদ্রণশোধক ছাত্রদের মধ্য থেকে নির্বাচিত করা হয়। স্কুল ম্যাগাজিন ফি দিয়ে এক ম্যাগাজিন তহবিল গঠন করা হয়। সম্পাদক বাংলা এবং ইংরেজিতে লেখা আহ্বান করেন। তারপর যথাযথ নিরীক্ষণের মাধ্যেমে ভালো লেখাগুলো প্রকাশের জন্য নির্বাচিত করা হয়। বাণিজ্য সম্পাদক বিজ্ঞাপনের জন্য ম্যাগাজিনের কিছু অংশ বিক্রি করে টাকা সংগ্রহ করেন। সাধারণত ম্যাগাজিনের দুটো অংশ থাকে বাংলা এবং ইংরেজি। প্রধানশিক্ষক এবং স্কুল সচিবের বাণী থাকে। এছাড়াও এতে বার্ষিক তথ্য, প্রবন্ধ ছোট গল্প,নাটিকা ইত্যাদি থাকে। এতে কৌতুক, ধাঁধা, শব্দ ধাঁধা ইত্যাদিও থাকে অধিকাংশ বিষয় ছাত্রদের দ্বারা লিখিত এবং কিছু শিক্ষকদের দ্বারা প্রদান করা হয়। একটি স্কুল ম্যাগাজিন দলীয় উদ্দীপনার উন্নয়ন করে তরুণ শিক্ষার্থীদের লেখা এবং চিন্তার সুপ্তপ্রতিভা প্রকাশ করতে উৎসাহিত করে। এটি ভবিষ্যৎ লেখক এবং কবি হিসেবে বিকশিত হতে তাদের সাহায্য করে।


একই অনুচ্ছেদ আরেকবার সংগ্রহ করে দেওয়া হলো


স্কুল ম্যাগাজিনে সাহিত্যকর্ম ওই স্কুলের অন্যান্য তথ্য থাকে। প্রতিবছর আমাদের স্কুলে একটি চমৎকার ম্যাগাজিন বের করে থাকে ম্যাগাজিনটির নাম স্কুল ক্যাম্পাস। ম্যাগাজিনটি সুষ্ঠুভাবে বের করতে একটি কমিটি রয়েছে। কমিটিতে নয় জন সদস্য রয়েছে। কমিটির সদস্যরা হচ্ছে প্রধান পৃষ্ঠপোষক, উপদেষ্টা, সম্পাদক, সহকারী সম্পাদক, বাণিজ্য সম্পাদক, প্রুফরিডার, সহকারী প্রুফরিডার, প্রমুখ। প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন আমাদের প্রধান শিক্ষক আর একজন অভিজ্ঞ শিক্ষককে দেওয়া হয় উপদেষ্টার দায়িত্ব। সম্পাদক, বাণিজ্য সম্পাদক ও সহকারী প্রুফরিডার ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে থেকে বাছাই করা হয়। 'স্কুল ম্যাগাজিন ফি' থেকে তহবিল সংগ্রহ করা হয়। সম্পাদক বাংলা ও ইংরেজিতে লেখা আহ্বান করেন। এরপর ভালোভাবে যাচাই বাছাই করে সেরা লেখাগুলো নেওয়া হয়। বাণিজ্য সম্পাদক ম্যাগাজিনে বিজ্ঞাপন দেওয়ার সুযোগ সৃষ্টি করার মাধ্যমে কিছু টাকা উপার্জনের ব্যবস্থা করেন। ম্যাগাজিনে প্রধান শিক্ষক ও স্কুলের কার্যনির্বাহকের বার্তা, বার্ষিক বিবরণী, রচনা, ছোটগল্প, কবিতা, নাটিকা প্রভৃতি থাকে। এতে কৌতুক, কুইজ ও ধাঁধাও থাকে। স্কুল ম্যাগাজিন আমাদের মাঝে দলগত চেতনা জাগ্রত করতে সাহায্য করে। এটি আমাদের সৃজনশীলতার বিকাশ ঘটায়। এটি আমাদের এক বিশাল আনন্দের উৎসও। ছাপা হওয়া বইয়ে নিজেদের লেখা দেখে আমাদের আনন্দের সীমা থাকে না।
Post a Comment (0)
Previous Post Next Post