অনুচ্ছেদ : আমাদের বিদ্যালয়

আমাদের বিদ্যালয়


আমাদের বিদ্যালয়ের নাম ‘মুকুল বিদ্যানিকেতন’। শিশু শ্রেণি থেকে এই বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছি আমি। আমাদের বিদ্যালয়টি আমাদের গ্রামেই অবস্থিত। বাড়ি থেকে খানিকটা হেঁটে জোড়াদিঘি নামক দুটো বড় বড় পুকুর আছে। তারই এক পাড়ে আমাদের বিদ্যালয়। আশেপাশের কয়েকটি গ্রামের ছেলেমেয়েরা এখানে পড়াশোনা করে। বিদ্যালয়টির বয়স প্রায় ১০০ বছর। শত শত শিক্ষার্থী এই বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে কীর্তিমান হয়েছেন। সারি সারি তালগাছের ছায়ায় ঘেরা আমাদের বিদ্যালয়টি দেখতে অনেক সুন্দর। এটি একটি সাদা রঙের দোতলা ভবন। নিচতলায় শিক্ষকদের কক্ষ, অফিস কক্ষ, বিজ্ঞানাগার ও পাঠাগার আছে। পাঠাগারে দেশি-বিদেশি নানারকম বই ও পত্র-পত্রিকা রয়েছে। দোতলায় সবগুলো শ্রেণিকক্ষ বিদ্যালয়টির সামনে একটি খেলার মাঠ এবং দুদিকে দুটো ছোট বাগান আছে। আমাদের বিদ্যালয়ে শিশু শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ানো হয়। প্রতিদিন সকাল আটটা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত ছাত্রদের কোলাহলে মুখর হয়ে থাকে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ। প্রায় ৩০০ জন ছাত্রছাত্রী ও ১২ জন শিক্ষক আছেন এ বিদ্যালয়ে। শিক্ষকেরা আমাদের খুবই যত্ন নিয়ে পড়ান এবং খুবই ভালোবাসেন। আমরাও আমাদের বিদ্যালয় ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকদেরকে অনেক ভালোবাসি।


1 Comments

  1. 😍😍😍😍😍😍😍😍😍😍😍😍

    ReplyDelete
Post a Comment
Previous Post Next Post