My All Garbage

Shuchi Potro
সাধারণ জ্ঞান বাংলা ব্যাকরণ বাংলা রচনা সমগ্র ভাবসম্প্রসারণ তালিকা অনুচ্ছেদ চিঠি-পত্র ও দরখাস্ত প্রতিবেদন প্রণয়ন অভিজ্ঞতা বর্ণনা সারাংশ সারমর্ম খুদে গল্প ভাষণ লিখন দিনলিপি সংলাপ অ্যাসাইনমেন্ট-২০২১ English Grammar Composition / Essay Paragraph Letter, Application & Email Dialogue List Completing Story Report Writing Graphs & Charts পুঞ্জ সংগ্রহ বই পোকা হ য ব র ল তথ্যকোষ পাঠ্যপুস্তক CV & Job Application My Study Note আমার কলম সাফল্যের পথে
About Contact Service Privacy Terms Disclaimer Earn Money


বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শিক্ষা সহায়ক ওয়েব সাইট

অনুচ্ছেদ : ই-বুক

ই-বুক


ই-বুক বা ইলেকট্রনিক বুক হচ্ছে বইয়ের আদলে প্রকাশিত ডিজিটাল বই। এই বই হচ্ছে একাধারে চিত্র ও কথার সম্বনয়ে প্রকশিত বই যা বা অন্য যেকোন ইলেকট্রনিক যন্ত্রের মাধ্যমে সংগ্রহ করা যায় এবং পড়া যায়। ই-বুক তথাকথিত পুস্তক বা বইয়ের মতো কাগজে ছাপানো আকারে প্রকাশিত নয়। তবে ছাপানো বইয়ের মতোই একে পড়া যায় ই-রিডারের মাধ্যমেম অক্সফোর্ড ডিকশনারি ই-বুককে সংজ্ঞায়িত করে থাকে এভাবে "An electronic version of a printed book". ১৯৪০ সালের দিকে ই-বুকের ধারণা প্রথম প্রবর্তিত হয়। সর্বপ্রথম প্রকাশিত ই-বুক হচ্ছে- 'ইনডেক্স থমেসটিকাস' যা ১৯৪৯ সালে প্রকাশিত হয়। এটি তৈরিতে কাজ করেছিলেন রবার্টো বুসা। এছাড়াও ১৯৪৯ সালে ই-বুক প্রকাশ করেন এ্যাঞ্জেলা লুইস র‍্যাবজ। ২০০৯ সালের আগস্ট পর্যন্ত প্রকাশিত ই-বুকের সংখ্যা দু-লক্ষেরও বেশি, যা বর্তমানে তিন লক্ষের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে। ই-বুক পড়ার প্রবণতা দিন দিন বাড়ছে। কারণ এটি সস্তা ও সহজলভ্য। ই-বুক তৈরিতে ছাপানো বইয়ের চেয়ে কম খরচ হয় তাই ই-বুক নিঃসন্দেহ সাশ্রয়ী। আবার ই-বুক সহজলভ্যও। কারণ এটি ইন্টারনেট থেকে যখন খুশি সংগ্রহ করা যায়। আধুনিক যান্ত্রিক ও বিশ্বায়নের যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে সকল পাঠককেই ই-বুকের প্রতি আগ্রহী হতে হবে। কারণ, ই-বুক স্বল্পসময়ে ও সহজলভ্য উপায়ে বিনোদন ও জ্ঞানার্জনের আদর্শ মাধ্যম।

No comments