বইয়ে খোঁজার সময় নাই
সব কিছু এখানেই পাই

সাধারণ জ্ঞান : ধান

ধান
সবচেয়ে বেশি ধান উৎপন্ন হয় কোন জেলায়? – ময়মনসিংহ জেলায়।

বাংলাদেশের আবাদী জমির কত অংশে ধান চাষ হয়? – ৭০%।

চলতি বাজার মূল্যে জিডিপিতে সর্বাধিক অবদান কোন খাতের? – কৃষি খাত।

বাংলাদেশের জাতীয় কৃষি নীতি কবে প্রণয়ন করা হয়? – ১৯৯৯ সালে।

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (BRRI) কোথায় অবস্থিত? – গাজীপুরের জায়দেবপুরে।

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট কত সালে প্রথম, কী ধান উদ্ভাবন করে? – ১৯৭০ সালে ‘চান্দিনা’ বি. আর. ৮।

বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টিকারী বাংলাদেশের উন্নত জাতের ধান কোনটি? – হাইব্রিড (জনক-ইউয়েন লং পিং)।

সর্বোচ্ছ ফলনের ধানের জাত কোনটি? – বিনাধান-৬।

আলোক-৬২০১ কী? – উচ্চ ফলনশীল এক প্রকার ধানের জাত।

বাংলাদেশে বীজ শোধন যন্ত্রের উদ্ভাবক কে? – প্রফেসর ড. বাহাদুর মিয়া।

IRRI কী? – International Rice Research Institute (আন্তর্জাতিক ধান গবেষণা কেন্দ্র)।

IRRI (International Rice Research Institue)-এর প্রধান কার্যালয় কোথায় অবস্থিত? – ফিলিপাইনের ম্যালিনায়।

বাংলাদেশে কবে হাইব্রিড ধান উৎপাদন শুরু হয়েছে? – ১৯৯৮ সালের ডিসেম্বর থেকে।

‘বাউ-১৬’ কী? – উচ্চ ফলনশীল ধান; এটি ১৯৯৬ সালে উদ্ভাবিত হয়।

‘আলোক-৬২১০’ কী? – উচ্চ ফলনশীল ধান।

উচ্চ ফলনশীল ‘আলোক-৬২১০’ কোন দেশে থেকে আমদানী করা হয়েছে? – ভারত থেকে (ব্রাক আমদানি করেছে)।

চাল রপ্তানিতে শীর্ষ দেশ কোনটি? – থাইল্যান্ড।

বাংলাদেশের কোন জেলায় সবচেয়ে বেশি চালকল রয়েছে? – নওগাঁ।

‘পূর্বাচী’ ধান কোন দেশ থেকে আনা হয়েছে? – গণচীন থেকে।

সুপার সাইস (Super Rice) কী? – উচ্চ ফলনশীল ধান।

স্পিরোলিনা কী, কে আবিষ্কার করেন? – এক প্রকার শৈবাল জাতীয় সুষম খাদ্য। আবিষ্কারক: ড. ফ্লোরা মজিদ।

স্বর্ণা সার কী, কে, কখন আবিষ্কার করেন? – এক ধরনের জৈব সার, ১৯৮৭ সালে আবদুল খালেক এই সার আবিষ্কার করেন।

‘স্বর্ণা সার’ এ পর্যন্ত কী কী পুরস্কার পেয়েছে? – কমনওয়েলথ ও বাংলাদেশের প্যাটেন্ট সার্টিফিকেট।

বাংলাদেশের কৃষি উন্নয়ন ক্ষেত্রে প্রথম রাষ্ট্রপতি পুরস্কার ঘোষণা করা হয় কবে? – ১৯৭৯ সালের ১৪ এপ্রিল। (জাতীয় কৃষি পুরস্কার)।

বাংলাদেশের পানি সম্পদের চাহিদা সবচেয়ে বেশি কোন খাতে? – কৃষি খাতে।

বাংলাদেশের এ যাবৎ কয়ট কৃষিশুমারী অনুষ্ঠিত হয় এবং কত সালে? – ৪টি। প্রথম কৃষিশুমারী ১৮ নভেম্বর ১৯৮০ (ফলপ্রকাশ), দ্বিতীয় কৃষিশুমারী ২৬ জুন ১৯৮৬, তৃতীয় কৃষিশুমারি ৬-২৬ জানুয়ারি ১৯৯৭, চতুর্থ কৃষি শুমারী সারাদেশে একযোগে ১১ মে ২০০৮ এ অনুষ্ঠিত হয়।

সমগ্র বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ২ কোটি ৯৯ লাখ খানা একযোগে কৃষি শুমারী করে কবে? – ১১ মে ২০০৮।

বর্তমানে ধান উৎপাদনে পৃথিবীতে বাংলাদেশের স্থান কততম? – চতুর্থ।

ধান উৎপাদন ও রপ্তানির ক্ষেত্রে শীর্ষ দেশ কোন গুলো? – উৎপাদনে-চীন এবং রপ্তানিতে-থাইল্যান্ড।

‘হাইব্রীড’ ’হীরা’ ও ‘সোনার বাংলা-১’ ‘সুপার রাইস’ কী? – নতুন উদ্ভাবিত উচ্চফলনশীল জাতের এক প্রকার ধান।

বৈচিত্র্যময় ধান
বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাবিত লবণাক্তসহিষ্ণু ধান কী কী? – বিনা-৮ ও বিনা-৯।

মঙ্গা এলাকার জন্য কোন ধান বিখ্যাত? – বিআর-৩৩।

লবণাক্ত সহনশীল ধানের জাত কোনটি? – ব্রি ধান ৪৭।

জোয়ার-ভাটা অঞ্চলের জন্য উপযুক্ত ধান কোনটি? – ব্রি ধান ৪৪, ব্রি ধান ৩৩, বিআর ১১।

বন্যা-পরবর্তী এলাকার জন্য উপযুক্ত ধান কোনটি? – ব্রি ধান ৪৬।

জলমগ্ন এলাকায় সহনশীল ধান কোনটি? – বিআর ১১।

No comments