বইয়ে খোঁজার সময় নাই
সব কিছু এখানেই পাই

ভাবসম্প্রসারণ : জনগণ নন্দিত একজন সাহসী নেতার কণ্ঠস্বর / সহস্র বুলেটের চেয়ে শক্তিশালী

জনগণ নন্দিত একজন সাহসী নেতার কণ্ঠস্বর
সহস্র বুলেটের চেয়ে শক্তিশালী

মূলভাব: জননন্দিত একজন নেতা বদলে দিতে পারে দেশকে। তার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয় জাতি। তার ব্যক্তিত্বে প্রভাবিত হয়ে মানুষ রুখে দাঁড়াতে পারে অন্যায় ও অত্যাচারের বিরুদ্ধে।

সম্প্রসারিত-ভাব : নেতৃত্ব একটি মহৎ গুণ। একটি দেশ যখন হতাশার তিমিরে হাবুডুবু খায়, মানুষ যখন খোঁজে মুক্তির অন্বেষণ তখন তাদের প্রয়োজন পড়ে একজন বলিষ্ঠ নেতার। কেননা, আমাদের সমাজে কর্মীর অভাব না থাকলেও রয়েছে সঠিক নেতৃত্বের অভাব। জনগণ এমন একজন নেতা খোঁজে যে হবে তাদেরই একজন। তাদের সুখ দুঃখ উপলদ্ধি করবে সে। একজন নেতার থাকতে হবে বলিষ্ঠ নেতৃত্ব গুণ, অসীম সাহস ও বীরত্ব। তাকে হতে হবে জনগণের আস্থাভাজন, অটল, অবিচল। কোন প্রকার লোভ, অত্যাচার, মোহ তাকে সংকল্প থেকে বিচ্যুৎ করতে পারবে না। জাতির জীবনে এই প্রাণ সঞ্চার করেন। এ ধরনের নেতাদের কর্ম ও অনুপ্রেরণায় সাধারণ মানুষ আপন অন্তরে অনুভব করেন অমিত শক্তি ও বল। তারা যে কোন ধরনের অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে পিছপা হন না। এদের কথায় জনগণ জীবন পর্যন্ত বিলিয়ে দিতে কুণ্ঠিত হন না। একজন জননন্দিত নেতার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের আহ্বানে সাড়া দিয়ে জনসাধারণ তুচ্ছ জ্ঞান করেন শত সহস্র বুলেটের আঘাত, শোষণের বিরুদ্ধে তারা হতে পারেন শাণিত তরবারি। এমন একজন নেতা দেশ ও জাতির সম্পদ। আমরা যদি ফিদেল ক্যাস্টো, ফিলিস্তিনের মুক্তি সংগ্রামের নেতা ইয়াসির আরাফাত, বঙ্গবন্ধু শেখ মজিব প্রমুখের দিকে তাকাই তাহলে এ কথার যথার্থতা সহজেই উপলদ্ধি করতে পারি। এদের ডাকে সাড়া দিয়ে লাখ লাখ মানুষ বুক পেতে দিয়েছে শত সহস্র বুলেটের সামনে। মৃত্যুকে তারা পরোয়া করেনি, জনগণ তাদের নেতৃত্বে ছিনিয়ে এনেছে মুক্তি।

তাই দেশ ও জাতি যখনই কোন বিপদে পতিত হয়, তখন আমরা খুঁজি এমন একজন জননন্দিত নেতাকে। একজন জনপ্রিয় নেতা প্রভাব ফেলতে পারে মানুষের মনে। তাদের মুখে খোঁজে প্রতিবাদের ভাষা, যার দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে জনগণ ছিনিয়ে আনবে মানবতার মুক্তি।

No comments