মার্চের দিনগুলি

শেয়াল ও সিংহ : ঈশপের গল্প

পশুদের রাজা সিংহ। যেমনি বিরাট তার চেহারা তেমনি তার গর্জন। তাকে দেখলে তা বটেই, দূর থেকে তার গর্জন শুনলেই বনের পশুরা ভিরমি খেতো, প্রায় আধমরা হয়ে যেতো।

এক শেয়াল আরেক বনে বাস করতো যেখানে কোনো সিংহ ছিল না।

একদিন ক্ষিধের জ্বালায় অস্থির হয়ে শেয়াল ঘুরতে ঘুরতে এমন এক বনে এসে পড়লো, যে বনে পশুরাজ সিংহ বাস করতো। শেয়াল তখন খাবারের খোঁজে ঐ বনে ঘুরছিল। এমন সময় একটু দূরে সিংহ ডেকে উঠলো। সেই ডাক শোনামাত্র শেয়াল ভয়ে কাঁপতে কাঁপতে মাটিতে বসে পড়লো। একটু পরে সিংহ যখন তার সামনে হাজির তখন শেয়াল তার ভয়ংকর চেহারা দেখে ভয়ে অজ্ঞানই হয়ে গেল।

ঈশপের গল্প : শেয়াল ও সিংহ
সিংহ ও শেয়াল

এরপর শেয়াল আরেকদিন সেই বনে এসে আবার সিংহের দেখা পেল। এবার ভয় যে তার না করলো তা নয়, তবে আগের বারের মতো অজ্ঞান আর হলো না। বরং কিছুক্ষণ তার দিকে চেয়ে রইল, হ্যাঁ, বিরাট চেহারাই বটে, তবে আমারই মতো পশু ছাড়া এ আর কিছুই তো নয়। আমায় তো সেদিন খেয়ে ফেলেনি এই ভেবে শেয়াল তাকে দেখে আর পালালো না।

এর পরের বারবনে এসে সিংহের সঙ্গে যখন তার দেখা হলো, তখন তাকে দেখে ভয় যে তার একেবারেই করলো না তা নয়, তবু বাইরে ভয়ের কিছু না দেখিয়ে তার সামনে দিয়ে স্বচ্ছন্দে চলে গেল।

এরপর অবশেষে এমন একদিনও এলো, যখন যে সিংহকে দেখে তাকে কিছুমাত্র ভয় না পেয়ে তার সামনে গিয়ে বললো কি গো বন্ধু ভালো আছো তো?

নীতিকথা : দূর থেকে কোনো কিছু ভয় করা উচিত নয়। কারণ সব কিছু ভয়ের নয়।
Post a Comment (0)
Previous Post Next Post