My All Garbage

Shuchi Potro
সাধারণ জ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট-২০২১ বাংলা রচনা সমগ্র ভাবসম্প্রসারণ তালিকা অনুচ্ছেদ চিঠি-পত্র ও দরখাস্ত প্রতিবেদন প্রণয়ন অভিজ্ঞতা বর্ণনা সারাংশ সারমর্ম খুদে গল্প ব্যাকরণ Composition / Essay Paragraph Letter, Application & Email Dialogue List Completing Story Report Writing Graphs & Charts English Note / Grammar পুঞ্জ সংগ্রহ বই পোকা হ য ব র ল তথ্যকোষ পাঠ্যপুস্তক CV & Job Application বিজয় বাংলা টাইপিং My Study Note আমার কলম সাফল্যের পথে
About Contact Service Privacy Terms Disclaimer Earn Money


৫ অক্টোবর - বিশ্ব শিক্ষক দিবস
বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শিক্ষা সহায়ক ওয়েব সাইট

সাধারণ জ্ঞান : আহমদ শরীফ

আহমদ শরীফ 

আহমদ শরীফ কবে, কোথায় জন্মগ্রহণ করেন? — ১৩ ফেব্রুয়ারি ১৯২১ সালের চট্টগ্রামের সুচক্রদণ্ডিতে। 

তিনি মূলত কি হিসেবে পরিচিত? — শিক্ষাবিদ ও গবেষক হিসেবে। 

তাঁর উল্লেখযোগ্য গ্রন্থসমূহের পরিচয় দাও।
  • প্রবন্ধ গবেষণা : বিচিত চিন্তা (১৯৮৬), সাহিত্য সংস্কৃতি চিন্তা (১৯৬৯), স্বদেশ অন্বেষা (১৯৭০), যুগ যন্ত্রণা (১৯৭৪), কালিক ভাবনা (১৯৭৪), মধ্যযুগের সাহিত্য সমাজ ও সংস্কৃতির রূপ (১৯৭৭), বাঙালী ও বাঙলা সাহিত্য (১ম খণ্ড ১৯৭৮, ২য় খণ্ড ১৯৮৩), ইদানিং আমরা (১৯৮৬), বাঙালির চিন্তা চেতনার বিবর্তনের ধারা (১৯৮৭), একালের নজরুল (১৯৯০), সময় সমাজ মানুষ (১৯৯৫), স্বদেশ চিন্তা (১৯৯৭), বিশ শতকের বাঙালী (১৯৯৮), বিশ্বাসবাদ বিজ্ঞানবাদ যুক্তিবাদ মৌলবাদ (২০০০)।
  • সম্পাদনা : লাইলি মজনু (১৯৫৭), মুসলিম কবির পদসাহিত্য (১৯৬১), মধ্যযুগের বাঙলা গীতিকবিতা (১৯৬১), মধ্যযুগের কাব্য সংগ্রহ (১৯৬২), রসুল বিজয় (১৯৬৪), কোরেশী মাগন ঠাকুর রচিত 'চন্দ্রাবলী' (১৯৬৭), আলাওল বিরচিত সিকান্দারনামা (১৯৭৭), সৈয়দ সুলতান বিরচিত নবীবংশ (১৯৭৮), সৈয়দ সুলতান বিরচিত রসুল চরিত (১৯৭৮)। 

তিনি কি কি পুরস্কার লাভ করেন? — বাংলা একাডেমি পুরস্কার (১৯৬৮), দাউদ সাহিত্য পুরস্কার (১৯৬৯), বাংলাদেশ লেখক সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮০), আলক্ত সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৪), মুক্তধারা সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৯), একুশে পদক (১৯৯১), ডি.লিট (সম্মানসূচক) রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয় (১৯৯৩)। 

তিনি কবে মৃত্যুবরণ করেন? — ১৯৯৯ সালের ২৪ শে ফেব্রুয়ারি। 

তাঁর মৃতদেহ দান সংক্রান্ত সংক্ষিপ্ত বিবরণ দাও। — তাঁর দেহকে কবর দেওয়া হয়নি। মৃত্যুর আগে তিনি উইল করে নিজের মৃত্যুদেহ 'বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ'কে দান করে যান। তিনি এমনটা লিখেছিলেন— "গোটা অঙ্গ কবরে কীটের খাদ্য হওয়ার চেয়ে মানুষের কাজে লাগাই বাঞ্চনীয়।"

No comments