ভাবসম্প্রসারণ : সবুরে মেওয়া ফলে

সবুরে মেওয়া ফলে

মূলভাব : জীবনে সফলতা আনার অন্যতম প্রধান উপায় হলো ধৈর্য্য বা সবুর। অতি অল্প সময় কোন কিছুর সফলতা আশা করা ঠিক নয়। সবুরের মধ্যে নিহিত রয়েছে যথার্থ বিজয় ও উত্তম ফলাফল। 

সম্প্রসারিত ভাব : জীবন চলার পথে মানুষের একটি বিশেষ গুণাবলির নাম হলো সবুর বা ধৈর্য্য। জীবনে সফলতা ও বাস্তবতার নিরিখে উন্নয়নের পরিসর সুন্দর করতে হলে প্রথমত যা দরকার তা হলো সবুর। ক্রমধারা অবলম্বন ছাড়া কর্মফল পাকাপোক্ত হয় না। ক্রমধারা অবলম্বন অর্থ অপেক্ষা বা ধৈর্য্য। ধৈর্য্যই মানব জীবনে সফলতার প্রসূতি। যার যত সবুর বেশি, তার জীবনে বিজয় ও সফলতার মাত্রা তত অধিক। তাৎক্ষণিক কিছু ভালো হয় না। যদি দায়সারা কিছু করতে হয়, তবে তা হয় অতি দ্রুত। মূলত মজবুতভাবে ফলাফলের দিকে যেতে হলে আগে প্রস্তুতি থাকবে সবুর করার। পৃথিবীতে যে কোন সফলতা বা বিজয়ের কথা আলোচনা করা হোক না কেন, তার পেছনে রয়েছে অগাধ বিশ্বাস ও সবুর। সময়ের ক্ষেত্রে অর্থাৎ সবুর করার ব্যাপারে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনও তাঁর কালামে পাকে ঘোষণা দিয়েছেন, “তোমরা ধৈর্য্য ধারণ কর, আল্লাহ তোমাদের সাথে আছেন।” বাস্তবিকপক্ষে মানুষের জীবনে সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, শিক্ষা, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় সকল ব্যাপারে সফলতার নেপথ্যে মূলমন্ত্র হিসেবে সবুর কাজ করেছে। এটিই ধরণীর সত্য যে, সবুর ছাড়া কোন কাজে সফলতা আসে না। সবুর মানব জীবনের মিশন। যা স্বয়ং আল্লাহর পক্ষ থেকেও ঘোষণা এসেছে। প্রত্যেক মানুষকে জীবন চলার পথে প্রত্যেকটি কাজে সবুর বা ধৈর্য্য ধারণ করা আবশ্যক।
Post a Comment (0)
Previous Post Next Post