বইয়ে খোঁজার সময় নাই
সব কিছু এখানেই পাই

অনুচ্ছেদ : গণশিক্ষা

গণশিক্ষা


গণশিক্ষা হচ্ছে অনানুষ্ঠানিক বিকল্প শিক্ষাব্যবস্থা। অজ্ঞতা অন্ধকারের শামিল। এ অন্ধকার দূরীকরণে শিক্ষা অতি গুরুত্বপূর্ণ। এ অন্ধকার দূর করার জন্য শিক্ষা কোনো বিশেষ গোষ্ঠীর জন্য না হয়ে সার্বজনীন হতে হবে। শিক্ষার সার্বজনীনতার জন্য যে বিষয়টি প্রথমে আসে তা হচ্ছে গণশিক্ষা। গণশিক্ষা বলতে সমাজের সকল শ্রেণির মানুষের জন্য শিক্ষাকেই বুঝায়। এটি সাধারণত সমাজের বয়ঃপ্রপ্ত শ্রেণিকে দেওয়া হয়। আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ এখনও নিরক্ষর। শিক্ষা না থাকার কারণে তারা সমাজের অনেক সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত। এ কারণে আমাদের সরকার বিভিন্ন এনজিও এর সহযোগিতায় সাধারণ মানুষকে শিক্ষিত করার প্রয়াসে এগিয়ে এসেছে। বাংলাদেশে গণকেন্দ্রগুলো কিছু সময়ব্যাপী এদেশের গ্রাম্য বয়স্ক নারী-পুরুষদের শিক্ষিত করছে। এ শিক্ষার পরিধি খুব ব্যাপক না হলেও তা খুবই বাস্তবসম্মত। এ শিক্ষার কার্যকারিতার ফলে সংসারজীবনের বাস্তবসম্মত ব্যবস্থাপনা পূর্বের চেয়ে অনেক সহজ হয়েছে। গণশিক্ষা কার্যক্রমকে আরও উজ্জীবিত করার জন্য সরকারকে শিক্ষার বিনিময়ে খাদ্য, সবার জন্য শিক্ষা, ইত্যাদি কর্মসূচির মতো বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ নিতে হবে। এক্ষেত্রে প্রচার মাধ্যমগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। শিক্ষার মান বৃদ্ধির মাধ্যমেই কেবল জাতির সুষ্ঠু উন্নতি সম্ভব যা নিঃসন্দেহে গণশিক্ষার মতো কার্যক্রমের মাধ্যমে ত্বরান্বিত হতে পারে।

No comments