বইয়ে খোঁজার সময় নাই
সব কিছু এখানেই পাই

সাধারণ জ্ঞান : বীরশ্রেষ্ঠদের পরিচিতি

বীরশ্রেষ্ঠদের পরিচিতি 



ল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ শেখ

জন্ম : ২৬ ফেব্রুয়ারি ১৯৩৬
জন্মস্থান : মহিষখোলা, চণ্ডীবরপুর, সদর, নড়াইল।
পিতা : আমানত শেখ
মাতা : জেন্নাতুন নেসা।
স্ত্রী : মোসাম্মৎ তোতা বেগম।
একমাত্র ছেলে : মোস্তফা কামাল।
যে সেক্টরে যুদ্ধ করেন : ৮নং সেক্টরে (যশোর)।
বিডিআরে (ইপিআর) যোগদান : ২৬ ফেব্রুয়ারি ১৯৫৯ (ইপিআর নং : ৯৪৫৯)।
শহিদ হন : যশোরের গোয়ালহাঁটি গ্রামে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সাথে সম্মুখ সমরে।
সমাহিত করা হয় : যশোরের শার্শা উপজেলার কাশিপুর গ্রামে।


ল্যান্স নায়েক মুন্সী আবদুর রউফ

জন্ম : ৮ মে, ১৯৪৩।
জন্মস্থান : সালামতপুর (বর্তমান রউফনগর), কামারখালী, মধুখালী (সাবেক বোয়ালমারী থানা), ফরিদপুর।
পিতা : মুন্সী মেহেদী হোসেন।
মাতা : মুকিদুন্নেসা।
মৃত্যু : ৮ এপ্রিল ১৯৭১।
শহিদ হন : রাঙামাটি জেলার নানিয়ারচর উপজেলার বুড়িমারি এলাকার চিংড়ি খালের পাড়ে পাকিস্তানি সৈন্যদের ছোঁড়া মর্টারের গোলায়।
সমাহিত করা হয় : রাঙামাটি শহরের রিজার্ভ বাজারে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের পাশে।
কর্মস্থল : পূর্ব পাকিস্তান রাইফেলস (ইপিআর)।
বিডিআরে (ইপিআর) যোগদান : ৮ মে ১৯৬৩ (ইপিআর নং : ১৩১৮৭)।


ক্যাপ্টেন মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীর

জন্ম : ৭ মার্চ ১৯৪৯।
জন্মস্থান : রহিমগঞ্জ, আগরপুর, বাবুগঞ্জ, বরিশাল।
পিতা : আবদুল মোতালেব হাওলাদার।
মাতা : সাফিয়া বেগম।
কর্মস্থল : সেনাবাহিনী, যোগদান ৩ অক্টোবর ১৯৬৭ (সেনাবাহিনীতে নম্বর পিএসএস ১০৪৩৯)
মৃত্যু : ১৪ ডিসেম্বর ১৯৭১।
শহিদ হন : চাঁপাইনবাবগঞ্জ ঘাঁটি দখল করতে গিয়ে সম্মুখ সমরে।
সমাহিত করা হয় : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ থানায় ঐতিহাসিক গৌড়ের ছোট সোনা মসজিদ প্রাঙ্গণে।
যে সেক্টরে যুদ্ধ করেন : ৭নং সেক্টরে, সাব-সেক্টর কমাণ্ডার হিসেবে।
যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (পরিসংখ্যান বিভাগ)।


স্কোয়াড্রন লিডার রুহল আমিন

জন্ম : জুন ১৯৩৫।
জন্মস্থান : বাঘচাপড়া, দেউটি, সোনাইমুড়ি, নোয়াখালী।
পিতা : মোহাম্মদ আজহার পাটোয়ারী।
মাতা : জোলেখা খাতুন।
কর্মস্থল : নৌবাহিনী (যোগদান ১৯৫৩)।
শহিদ হন : খুলনার রূপসা উপজেলার বাগমারা গ্রামে রূপসা নদীতে নৌবাহিনীর জাহাজ পলাশ নিয়ে খুলনার উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার পর পাকিস্তান বিমানবাহিনীর নিক্ষিপ্ত গোলায়।
সমাহিত করা হয় : খুলনার রূপসা উপজেলার বাগমারা গ্রামে রূপসা নদীর তীরে।
যে সেক্টরে যুদ্ধ করেন : ১০নং সেক্টরে।
মৃত্যু : ১০ ডিসেম্বর ১৯৭১।


সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল

জন্ম : ১৬ ডিসেম্বর ১৯৪৯ সালে। জন্মস্থান : মৌটুপী গ্রাম, আলীনগর, ভোলা।
পিতা : হাবিবুর রহমান মণ্ডল (সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত হাবিলদার)
মাতা : মালেকা বেগম।
কর্মস্থল : সেনাবাহিনী (যোগদান ১৬ ডিসেম্বর ১৯৬৭)
মৃত্যু : ৮ এপ্রিল, ১৯৭১।
শহিদ হন : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার দক্ষিণে গঙ্গাসাগরের উত্তরে দরুইন গ্রামে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সাথে যুদ্ধে।
সমাহিত করা হয় : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মোগড়া গ্রামে।
যে সেক্টরে যুদ্ধ করেন : ২নং সেক্টরে।


ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মতিউর রহমান

জন্ম : ২৯ অক্টোবর ১৯৪১।
জন্মস্থান : মোবারক লজ, ১০৯ আগা সাদেক রোড, ঢাকা।
পিতা : মৌলবি আবদুস সামাদ (পেশায় কালেক্টরেট অফিস সুপারিন্টেনডেন্ট)।
পৈতৃক নিবাস : রামনগর, মুসাপুর, রায়পুরা, নরসিংদি।
কর্মস্থল : বিমানবাহিনী (যোগদান ১৫ আগস্ট ১৯৬১)
মাতা : সৈয়দ মোবারকুন্নেসা খাতুন।
মৃত্যু : ২০ আগস্ট ১৯৭১।
শহিদ হন : মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়ার জন্য পাকিস্তানের করাচি মৌরিপুর বিমান ঘাঁটি থেকে প্রশিক্ষণ বিমান নিয়ে পালিয়ে আসার সময় তার সহযোগী রশিদ মিনহাজের সাথে ধস্তাধস্তির সময় বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ভারতীয় সীমান্তে বিন্দা গ্রামের থাট্টায় শহিদ হন।
সমাহিত করা হয় : করাচির মাসরুর বিমান ঘাঁটির চতুর্থ শ্রেণির কবরস্থানে।
দেশে ফিরে আনা হয় : ২৪ জুন ২০০৬।
বর্তমানে যেখানে সমাহিত করা হয় : ঢাকার শহিদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে।
যে বিমানে পালিয়ে আসতে চেয়েছিলেন : টি-৩৩ (যার ছদ্মনাম ব্লুবার্ড ১৬৬)।
মতিউরকে নিয়ে তৈরি চলচ্চিত্রে নাম : অস্তিত্বে আমার দেশ।
মতিউর চরিত্রে রূপদানকারী : খিজির হায়াত খান।


সিপাহী মোহাম্মদ হামিদুর রহমান

জন্ম : ২ ফেব্রুয়ারি ১৯৫৩।
জন্মস্থান : খন্দখালিশপুর, মহেশপুর, ঝিনাইদহ।
পিতা ও মাতা : আক্কাছ আলী মণ্ডল ও কায়দাছুন্নেসা।
ভাই-বোন : ৭ জন।
সেনাবাহিনীতে যোগদান : ২ ফেব্রুয়ারি ১৯৭১।
মৃত্যু : ২৮ অক্টোবর ১৯৭১।
শহিদ হন : মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ থানার মাধবপুর ইউনিয়নের ধলই সীমান্তে সম্মুখযুদ্ধে।
সমাহিত করা হয় : ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলা থেকে ৮৬ কিলোমিটার দূরে ধলাই জেলার জেলা সদর আমবাসা শহরের অদূরে হাতিমারাছড়া গ্রামের আবদুল আলীর পারিবারিক কবরস্থানে। ১০ ডিসেম্বর ২০০৭ দীর্ঘ ৩৬ বছর পর তার দেহাবশেষ আমবাসা গ্রাম থেকে নিজ মাতৃভূমিতে ফিরিয়ে আনা হয়। ১১ ডিসেম্বর ২০০৭ সালে তাকে মিরপুর শহিদ বুদ্ধিবীবী কবরস্থানে সমাহিত করা হয়।
যে সেক্টরে যুদ্ধ করেন : ৪নং সেক্টর।

বীরশ্রেষ্ঠদের নামে গ্রাম ও ইউনিয়ন

পূর্বনাম
বর্তমান নাম
অবস্থান
রামনগর
মতিউর নগর
রায়পুরা, নরসিংদী
খোর্দ খালিশপুর
হামিদ নগর
মহেশপুর, ঝিনাইদহ
মৌটুপী
মোস্তফা কামাল নগর
আলী নগর, ভোলা
বাগপাচড়া
রুহুল আমীন নগর
সোনাইমুড়ী, নোয়াখালী
সালামতপুর
রউফ নগর
মধুখালী, ফরিদপুর
মহিষ খোলা
নূর মোহাম্মদ নগর
সদর, নড়াইল
বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরের গ্রামের নাম তার দাদার নামে হওয়ায় তার ইউনিয়ন আগরপুর বদলে মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর ইউনিয়ন হয়েছে।

No comments