বইয়ে খোঁজার সময় নাই
সব কিছু এখানেই পাই

ভাবসম্প্রসারণ : প্রতিভা এমন জিনিস, এ যাকে স্পর্শ করে তাকে সজীব করে

প্রতিভা এমন জিনিস, এ যাকে স্পর্শ করে তাকে সজীব করে

মূলভাব : মানব জীবনে সফলতা অর্জন করতে হলে প্রতিভার প্রয়োজন। প্রতিভা ছাড়া সাফল্যের স্বর্ণশিখরে আরোহণ করা যায় না। একবার প্রতিভা যাকে স্পর্শ করবে ব্যর্থতার গ্লানি তার জীবন থেকে মুছে যাবে। 

সম্প্রসারিত ভাব : প্রতিভা মানুষের এক অসামান্য গুণ। প্রতিভাবলে মানুষ অনেক সৃষ্টিশীলতার অধিকারী হয়েছেন। মানুষের সঠিক ব্যক্তিত্ব গড়ে ওঠার ক্ষেত্রেও এ প্রতিভা গুণটি অপরিসীম দায়িত্ব পালন করে। প্রতিভা শব্দটির অর্থ হলো-স্বভাবজাত ও অসামান্য বুদ্ধি, প্রত্যুৎপন্নমতিত্ব উদ্ভাবনী বুদ্ধি, অপূর্ব নির্মাণশক্তি সম্পন্ন ও প্রজ্ঞা। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, প্রচুর কবিতা পাঠ করলেই বা কৃত্রিমভাবে ধ্যান নিমগ্ন হলেই কবি হওয়া যায় না। স্বভাবজাত ক্ষমতা ও শক্তির প্রয়োজন হয়। অনুরূপভাবে অসামান্য বুদ্ধি দ্বারা স্বভাবজাত শক্তি ব্যবহার করে কেউ উদ্ভাবন করলে তাকে বলা হয়ে থাকে বৈজ্ঞানিক প্রতিভা। 

প্রতিভা এবং প্রত্যুৎপন্নমতিত্ব এদুটি গুণের সমন্বয় ঘটালে সেখানে সৃষ্টি হয় আরেক বিরাট প্রতিভা বা উদ্ভাবনী শক্তির। অবিজ্ঞতাজাত সঞ্চিত জ্ঞানকে প্রয়োজনের মুহূর্তে ব্যবহার করার ক্ষমতাই প্রত্যুৎপন্নমতিত্ব। শুধু অবর্ণনীয় কষ্ট ও চেষ্টার মাধ্যমে তা অর্জিত হয় না, এর জন্য থাকা চাই স্বভাবজাত ক্ষমতা। আহরিত জ্ঞানকে যথার্থ সময়ে যথার্থ স্থানে যথোপযোগী করে ব্যবহার করাই প্রজ্ঞা। দূরদৃষ্টি অর্থাৎ অদূর ভবিষ্যতে কি হবে তা বোঝা গেলেই প্রজ্ঞাবান হওয়া যায়। তাহলে দেখা যাচ্ছে, প্রতিভা একটি স্বভাবজাত ক্ষমতা যার ফলে প্রত্যুৎপন্নমতিত্ব উদ্ভাবনী বুদ্ধি, নির্মাণশক্তি ও প্রজ্ঞা প্রকাশ পায়। প্রতিভাবান ব্যক্তির প্রত্যুৎপন্নমতিত্ব, উদ্ভাবনী বুদ্ধি ও নির্মাণশক্তির প্রকাশের মধ্যেই তর সজীবতা ও প্রাণশক্তি পূর্ণমাত্রায় প্রতিভাত হয়ে ওঠে। এদিক থেকে প্রতিভাবান ব্যক্তি মানেই সৃষ্টিশীল। প্রতিভারূপ গুণের যে অধিকারী তার জীবন-পরম সাফল্যময় জীবন। সাফল্যের খাড়া সিঁড়ি বেয়ে তারা তরতর করে উপরে উঠে যায়। প্রতিভা থাকলে তার বিকাশ ঘটবেই, আর তখনই প্রতিভাবান ব্যক্তির মধ্যে ফুটে ওঠে এক উজ্জ্বল বৈশিষ্ট্য। প্রতিভাবান ব্যক্তি মাত্রই প্রতিনিয়ত প্রাণচঞ্চল ও কর্মতৎপর থাকেন। 

পৃথিবীতে যে সমস্ত ব্যক্তি মনীষী হিসেবে খ্যাতি অর্জন করে চিরস্মরণীয় তাঁরা সকলেই প্রতিভাবান ছিলেন। প্রতিভা তাঁদের প্রত্যেকের জীবনকে স্পর্শ করেছিল। তাই প্রতিভাকে কারো অস্বীকার করার উপায় নেই। প্রতিভার সাথে সংযুক্ত আছে চেষ্টা। এ দুয়ের সমন্বয়ে একজন মানুষ মহৎ হয়ে উঠেছে। তাই আমাদের প্রত্যেকেরই প্রতিভাবান হওয়া উচিত। তা না হলে সাফল্যের মুকুট ছিনিয়ে আনা সম্ভব হবে না নয়তো বারবার ব্যর্থতায় পর্যবসিত হবে।

No comments